মুক্ত স্বদেশ সিরিজ বাঁচানোর লক্ষ্যে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ | মুক্ত স্বদেশ

সিরিজ বাঁচানোর লক্ষ্যে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ


মুক্ত স্বদেশ ফেব্রুয়ারী ১০, ২০২১, ৭:১৬ অপরাহ্ন
সিরিজ বাঁচানোর লক্ষ্যে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ

সফরকারী ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দুই ম্যাচের সিরিজ বাঁচানোর লক্ষ্য নিয়ে মাঠে নামছে স্বাগতিক বাংলাদেশ। কাল শেরে-বাংলা স্টেডিয়ামে শুরু হওয়া সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্টে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ঘুড়ে দাঁড়ানোর প্রত্যাশায় বাংলাদেশ।

সকাল সাড়ে নয়টায় শুরু হওয়া ম্যাচটি সরাসরি প্রচার করবে বেসরকারি টিভি চ্যানেল টি স্পোর্টস ও নাগরিক টিভি।

দলের গুরুত্বপূর্ণ এ ম্যাচে ইনজুরির কারণে থাকছেন না অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। এদিকে ইনজুরির কারণে দল থেকে ছিটকে গেছেন ওপেনার সাদমান ইসলাম। চট্টগ্রামে প্রথম টেস্টে ও প্রথম ইনিংসে বেশ ভাল ফর্মে ছিলেন সাদমান। সাদমানের বদলি হিসেবে এখনো কারো নাম ঘোষণা করেনি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। তবে সাকিবের বদলি হিসেবে দলে নেয়া হয়েছে সৌম্য সরকারকে।

উদ্বোধনী ব্যাটসম্যন হিসেবে বাংলাদেশ দলের দ্বিতীয় টেস্ট ওপেনার তামিম ইকবালের সঙ্গে জুটি বাঁধতে পারেন সাইফ হাসান। ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে প্রথম টেস্টে তিন উইকেটে পরাজিত হওয়া বাংলাদেশ দলে কিছু পরিবর্তন হবে এবং ব্যাটিং পজিশনেও আসবে কিছুটা পরিবর্তন।

করোনা এবং ব্যক্তিগত কারণে প্রথম পছন্দের বেশ কিছু খেলোয়াড়ের অনুপুস্থিতিতেও বাংলাদেশ দলের ছুড়ে দেয়া প্রায় অসম্ভব ৩৯৫ রানের লক্ষ্য মাত্রা চেন্জ করে প্রথম টেস্ট জিতে দুই ম্যাচ সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে আছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

অধিনায়ক মমিনুল হক বলেছেন, সিরিজ বাঁচাতে হলে আমাদেরকে ঘুড়ে দাঁড়াতে হবে। আমাদের বোলিং, ব্যাটিং, ফিল্ডিং তিন বিভাগেই ভাল করতে হবে। আশা করছি দ্বিতীয় টেস্টে আমরা নিজেদের সেরাটাই ঢেলে দিতে পারব।

সম্প্রতি তিন ম্যাচের ওয়ানডে এবং ২০১৮ সালে বাংলাদেশ সফরে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজে হোয়াইটওয়াশ হওয়া ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে স্পস্টতই ফেবারিট হিসেবে মাঠে নেমেছিল টাইগাররা। কিন্তু অভিষেক টেস্ট খেলতে নামা কাইল মায়ার্সের রেকর্ড ভাঙ্গা অপরাজিত ২১০ রানের ইনিংসটি বাংলাদেশ দলকে মাটিতে নামিয়ে আনে।

আশার কথা হচ্ছে বাংলাদেশ দলের খেলোয়াড়রা সেটা কাটিয়ে উঠেছে এবং দ্বিতীয় টেস্ট জয়ের ব্যপারে আত্মবিশ্বাসী। সাকিবকে মাঠে পাওয়া যাবেনা সেটা জানা সত্বেও দ্বিতীয় ম্যাচ জয়ে আত্মবিশ্বাসী টাইগাররা।

অধিনায়ক মমিনুলসহ দলের প্রায়ই সবাই স্বীকার করেছেন যে, চট্টগ্রাম টেস্টের পঞ্চম দিন সাকিবের অনুপস্থিতির কারণেই ক্যারিবীয় ব্যাটসম্যানরা এমন সাবলীল খেলতে পেরেছে।

দ্বিতীয় টেস্ট জয়ের ওপর গুরুত্ব দিয়ে বাংলাদেশ অলরাউন্ডার মেহেদি হাসান মিরাজ বলেছেন, দ্বিতীয় টেস্টে সাকিব থাকলে আমরা আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে উজ্জীবিত হতে পারতাম। তবে যেহেতু তিনি নেই আমাদের স্পিনারদের অতিরিক্ত দায়িত্ব নিতে হবে। আমরা প্রথম ম্যাচের কিছু ভুল করেছি। কিন্তু দ্বিতীয় টেস্টে ভাল জায়গায় বোলিয়ের সর্বোচ্চ চেস্টা করবো।

বাংলাদেশ এ পর্যন্ত ১২০টি টেস্ট মাত্র ১৪টি জিতেছে। বিপরীতে হেরেছে ৯০ টেস্ট, যার মধ্যে ৪৩টি ইনিংস ব্যবধানে। বাকি ১৬টি করেছে ড্র। এ পরিসংখ্যান থেকেই বুঝা যায় লংগার ভার্সনে বাংলাদেশ কতটা দুর্বল। তবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ কোচ ফিল সিমন্সের মতে নিজ মাঠে বাংলাদেশ দল এখনো শক্তিশালী।

সিমন্স বলেছেন, প্রথম টেস্টে যেটাই হোক না কেন দ্বিতীয় ম্যাচে স্বাগতিকরা ঘুড়ে দাঁড়াবে প্রত্যাশা ওয়েস্ট ইন্ডিজের।

সিমন্স আরও বলেন, আমি মনে করছি তারা সাকিবের জায়গায় কাউকে ঠিকই পেয়ে যাবে, যে কিনা কাজটা ঠিকমত করতে পারবে। হয়তো বা সাকিবের মত ভাল করতে পারবেনা। তারপরও টেস্টে যথেষ্ঠ ভাল করতে সক্ষম হবে। সুতরাং আমি এমন নিশ্চয়তা দিতে পারছিনা যে সাকিব থাকবেনা এবং ব্যপারটা সহজ হবে।

প্রথম ম্যাচ জিততে পারলে আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে প্রথম পয়েন্ট অর্জন করতে পারত বাংলাদেশ। তবে সেটা সম্ভব হয়নি। বাংলাদেশ দলের এখন লক্ষ্য হচ্ছে দ্বিতীয় ম্যাচ জিতে সিরিজে সমতা আনা এবং টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে প্রথম পয়েন্ট অর্জন।