শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ০২:৫২ অপরাহ্ন

গির্জায় তিন দিন আটকে রেখে কিশোরীকে ধর্ষণ, ফাদার গ্রেফতার

মফস্বল ডেস্ক :
  • প্রকাশকালঃ বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২০

রাজশাহীর তানোর উপজেলায় একটি ক্যাথলিক গির্জায় তিন দিন আটকে রেখে এক কিশোরীকে (১৩) ধর্ষণের অভিযোগে ক্যাথলিক ফাদার প্রদীপ গ্রেগরিকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

গতকাল মঙ্গলবার রাতে অভিযান চালিয়ে র‌্যাব ৫-এর একটি দল অভিযুক্ত ফাদার প্রদীপ গ্রেগরিকে নগরীর শাহমখদুম থানার আমচত্বর এলাকা থেকে গ্রেফতার করে। র‌্যাব ৫-এর সিপিএসসির কোম্পানি কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এটিএম মাইনুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে মঙ্গলবার রাতে রাজশাহীর তানোর থানায় ফাদার প্রদীপের বিরুদ্ধে গির্জায় ওই কিশোরী ধর্ষণের অভিযোগে একটি মামলা হয়। মামলাটি করেন কিশোরীর ভাই।

এদিকে মামলার অভিযোগে বলা হয়, গির্জাসংলগ্ন মাহালীপাড়ার সপ্তম শ্রেণি পড়ুয়া কিশোরী গত ২৬ সেপ্টেম্বর সকালে গবাদিপশুর জন্য তানোরের মুণ্ডুমালায় অবস্থিত সাধু জন মেরী ভিয়ান্নী গির্জার ভেতরে ঘাষ কাটতে যায়। কিন্তু দিনের শেষেও কিশোরী আর বাড়ি ফিরে আসেনি।

পরিবারের লোকজন মাঠে ও বিভিন্ন মহল্লায় খুঁজেও তাকে আর পায়নি। ফলে কিশোরীর ভাই ২৭ সেপ্টেম্বর মুণ্ডুমালা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে বোনের নিখোঁজ হওয়ার বিষয়ে একটি সাধারণ ডায়েরি করেন।

স্থানীয়রা জানান, ২৮ সেপ্টেম্বর দুপুরে স্থানীয় কয়েকজন আদিবাসী নিখোঁজ কিশোরীকে গির্জার ভেতরে আটকে রাখার খবর পান। তারা ঘটনাটি পুলিশকে জানালে তানোর থানার ওসি রাকিবুল হাসান ওই রাতে গির্জায় অভিযান চালিয়ে ফাদারের কক্ষ থেকে কিশোরীকে উদ্ধার করে।

পরে তাকে পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়। পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে কিশোরী অভিযোগ করে ফাদার প্রদীপ তাকে তিন দিন গির্জার ভেতরে আটকে রেখে একাধিকবার ধর্ষণ করেছেন।

এদিকে ২৯ সেপ্টেম্বর রাতে কিশোরীর ভাই বাদী হয়ে ধর্ষণের অভিযোগে তানোর থানায় ফাদারের বিরুদ্ধে একটি মামলা করেন। যদিও মামলা হবে এমন আগাম খবর পেয়ে ফাদার প্রদীপ মঙ্গলবার দুপুরের দিকে গির্জা ছেড়ে রাজশাহীতে পালিয়ে যান।

অন্যদিকে মামলা রেকর্ডের পর রাতেই কিশোরীকে চিকিৎসা ও আইনি সহায়তার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করা হয়েছে।

মুণ্ডুমালা সদরের মাহালীপাড়ার বাসিন্দা ওই কিশোরীর ভাই স্বপন হাসদা বলেন, গত ২৬ সেপ্টেম্বর সকালে বাড়ি থেকে মাঠে ঘাস কাটতে গিয়ে তার বোন আর ফিরে আসেনি। সারাদিন খোঁজাখুঁজির পর না পেয়ে ২৭ সেপ্টেম্বর এ ঘটনায় তানোর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়। পর দিন ২৮ সেপ্টেম্বর গির্জার ফাদারের ভবনের ছাদে ওই কিশোরী ছাত্রীকে দেখতে পান স্থানীয়রা। খবর পেয়ে পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করতে গেলে ফাদার বাধা দেন।

এদিকে গির্জায় কিশোরী ধর্ষণের অভিযোগ ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয়দের মধ্যে ব্যাপক ক্ষোভ তৈরি হয়।

ক্যাথলিক মিশনারিদের পক্ষে অবশ্য দাবি করা হয়েছে, প্রদীপ অপরাধ করায় রাজশাহীর ক্যাথলিক ধর্ম প্রদেশের বিশপ বা প্রধান রাজশাহীর আমচত্বর এলাকার ক্যাথলিক বিশপদের প্রধান কার্যালয়ে বদলি করেন।

প্রদীপ গ্রেগরিও আদিবাসী মাহালী সম্প্রদায়ের লোক। কয়েক বছর আগে সাঁওতাল মাহালী থেকে ধর্মান্তরিত হলে তাকে মুণ্ডুমালা গির্জার ফাদার নিয়োগ করা হয়।

র‌্যাব কমান্ডার এটিএম মাইনুল ইসলাম জানান, ফাদার প্রদীপ গ্রেগরিকে মঙ্গলবার রাতে গ্রেফতারের পর র‌্যাব-৫ সদর দফতরে নেয়া হয়। তিনি কিশোরীকে ধর্মের ভয় দেখিয়ে গির্জায় আটকে রেখে কয়েকবার ধর্ষণ করেন বলে র‌্যাবের জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছেন।

প্রদীপকে তানোর থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হবে বলে জানিয়েছেন র‌্যাবের ওই কর্মকর্তা।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো সংবাদ
কারিগরি সহযোগিতায়: শরিফুল ইসলাম
01779911004