পদ্মাসেতুতে বাইক চালুর বিষয়ে নতুন সিদ্ধান্ত আসছে

প্রকাশিত: জুন ২৮, ২০২২

পদ্মাসেতুতে মোটরসাইকেল চলাচলের বিষয়ে নতুন সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী। মঙ্গলবার (২৮ জুন) দুপুরে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের অধীনস্ত দফতর/সংস্থার ২০২২-২৩ সালের বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি স্বাক্ষর ও ২০২১-২২ সালের শুদ্ধাচার পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান।

পদ্মাসেতুতে কবে থেকে মোটরসাইকেল চলাচল করতে পারবে, এমন প্রশ্নের জবাবে নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী বলেন, এটা অনির্দিষ্টকালীন সিদ্ধান্ত নয়। স্পিড গান, সিসিটিভি বসানো হবে। সেগুলো সেটাপের পর হয়তো নতুন করে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

পদ্মাসেতুর নাট-বল্টু খোলার সঙ্গে রাজনীতি দেখছেন কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমরা দেখেছি যে একজন নেত্রী যিনি এতিমের টাকা আত্মসাতের জন্য কারাবরণ করে আছেন। তিনি নিজেই বলেছেন, পদ্মাসেতুতে কেউ যাবেন না ভেঙে পড়বে, এটার নাট-বল্টু জোড়াতালির। জোড়াতালির রাজনীতি তো সেরকমই। যারা ফলোয়ার আছে তারা তো এটাকে সত্যই মনে করবেন। গলা থেকে একজন নারীর অলংকার ছিনতাই যেমন এটিও তেমন জিনিসই।

যাত্রী কম থাকায় লঞ্চ মালিকদের হতাশা প্রসঙ্গে এক প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী বলেন, তিন দিনেই হতাশা এলে হবে না। আমরা তো আশাবাদী। ১০ হাজার কিলোমিটার নৌপথ কেন তৈরি করছি? এটার চাহিদা আছে বলেই করছি। সেজন্য আমাদের শত শত কোটি টাকা ব্যয় করতে হচ্ছে, আমরা তো লক্ষ্য নিয়েই আছি। আমরা তো অপরিকল্পিতভাবে দেশ পরিচালনা করছি না। অপ্রয়োজনীয় কিছু প্রধানমন্ত্রী করছেন না। আমি মনে করি, লঞ্চ যাত্রা সামনে আরো উপভোগ করবেন।