জায়েদ-ওমর সানীর ঘটনা নিয়ে যা বললেন ডিপজল

প্রকাশিত: জুন ১২, ২০২২

খল অভিনেতা ও প্রযোজক মনোয়ার হোসেন ডিপজলের বড় ছেলে সৌমিকের বিবাহোত্তর সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হয়েছে গত শুক্রবার। সেই আয়োজনেই ঘটে গেছে এক নেতিবাচক ঘটনা। চিত্রনায়ক জায়েদ খানকে চড় মেরেছেন চিত্রনায়ক ওমর সানী। বিপরীতে জায়েদ খান পিস্তল বের করে গুলির হুমকি দিয়েছেন সানীকে।

খবরটি নিশ্চিত করেছেন ওমর সানী নিজেই। তিনি চড় মারার কথা স্বীকার করেন, সেই সঙ্গে জায়েদের পিস্তল বের করে হুমকি দেয়ার কথাও জানান।

তবে এবার ঘটনা নিয়ে মুখ খুলেছেন ডিপজল। তিনি স্পষ্ট ভাষায় বললেন, ‘এগুলো মিথ্যা, বানোয়াট খবর। এরকম কোনো ঘটনাই সেদিন ঘটেনি। যারা বলেছে, তারা মিথ্যা বলেছে।’

তাহলে এমন ভিত্তিহীন ঘটনা রটানো হচ্ছে কেন? এমন প্রশ্নের জবাবে ডিপজল বলেন, ‘কেন এরকম কথা ছড়ানো হচ্ছে, তা তো আমি বলতে পারব না। কারণ আমি ছেলের বিয়ের আয়োজন নিয়ে অনেক ব্যস্ত সময় পার করছি। আর এটা তো বিশ্বাসযোগ্য কথাও না। ওখানে পিস্তল নিয়ে কেউ ঢুকবে কীভাবে? প্রবেশের গেটেই তো সবাইকে চেক করা হয়।’

উল্লেখ্য, ওমর সানীর অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরে মৌসুমীকে বিরক্ত করে আসছেন জায়েদ খান। একাধিকবার তাকে সতর্কও করা হয়েছিল। কিন্তু তিনি কর্ণপাত করেননি।

ওমর সানী ভাষ্য, “বেয়াদবির একটা সীমা আছে। ও (জায়েদ) ইন্ডাস্ট্রিতে থেকে সবার সঙ্গে বেয়াদবি করবে, সব মেয়ে মানুষের সঙ্গে বিকৃত আচরণ করবে, এসবের একটা সীমারেখা আছে। সে মৌসুমীর সঙ্গে বেয়াদবি করার চেষ্টা করেছে। আমি গিয়েই (বিয়ের অনুষ্ঠানে) চড় মেরেছি। সে আমাকে পিস্তল ঠেকিয়ে হুমকি দিয়েছে। তখন আমি একটি গালি দিয়েছি তাকে।”

যদিও ওমর সানীর বক্তব্যকে পুরোপুরি মিথ্যা বলে দাবি করেছেন জায়েদ খান। ডিপজলের মতো তিনিও বলেছেন, এরকম কোনো ঘটনা সেদিন ঘটেনি। শত্রুতা করে তার নামে এসব কথা ছড়ানো হচ্ছে।