নিষেধাজ্ঞা, তবুও উপকূলে ধরা ইলিশে সয়লাব চাঁদপুর

প্রকাশিত: মে ৩১, ২০২১

নিষেধাজ্ঞা থাকলেও সমুদ্র ও উপকূলে ধরা ইলিশে সয়লাব চাঁদপুরের বড় স্টেশন মাছ ঘাট। যদিও ব্যবসায়ীদের দাবি, ইলিশ উপকূলের হলেও তা নিষিদ্ধ এলাকা থেকে ধরা হয়নি।

নদীতে ইলিশ ধরায় নিষেধাজ্ঞা নেই, নিষেধাজ্ঞা রয়েছে সমুদ্র ও উপকূলে। কিন্তু পদ্মা-মেঘনাসহ বিভিন্ন নদীতে মিলছে না কাঙ্ক্ষিত ইলিশ।

কিন্তু নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে উপকূলে ধরা ইলিশে সয়লাব চাঁদপুরের বড় স্টেশন মাছ ঘাট। দিনে আসছে ৫শ’ থেকে ৭শ’ মণ ইলিশ। কিন্তু এর মধ্যে নদীর মাছ মাত্র ১০ থেকে ১৫ মণ।

জেলেরা জানান, এখন যা আছে এর সবই সামুদ্রিক মাছ। এগুলো সাইজে অনেক ছোট।

তবে, মৎস্য ব্যবসায়ীদের দাবি, ইলিশ উপকূলীয় অঞ্চলের হলেও তা নিষিদ্ধ এলাকা থেকে ধরা হয়নি।

চাঁদপুর মৎস্য ব্যবসায়ী বণিক সমিতির সভাপতি আব্দুল বারী জমাদার বলেন, ‘যেহেতু জেলেরা সাগরে যেতে পারছেনা তাই তারা উপকূলের কাছাকাছি থেকে মাছ ধরছে। সাগরের কোন মাছ চাঁদপুরে আসেনা।’

উপকূলের ইলিশ ধরা বন্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এছাড়াও বৃষ্টিপাত বাড়লেই নদীতেই মাছ পাওয়া যাবে উল্লেখ করে চাঁদপুর জেলা মৎস্য কর্মকর্তা আসাদুল বাকী বলেন, ‘জেলারা যদি মাছ ধরেই থাকে তাহলে সেগুরো তারা এদিক সেদিকে গোপনে বিক্রি করতে পারে। আমরা এগুলো বন্ধের চেষ্টা করবো।’

২০শে মে থেকে ৬৫ দিনের জন্য দেশের সামুদ্রিক জলসীমানায় সকল ধরনের মাছ আহরণ নিষিদ্ধ করেছে সরকার।

(ডিবিসি)