রংপুরে ধসে পড়ল সওজের নির্মাণাধীন ভবনের ছাদ

প্রকাশিত: জুলাই ২৮, ২০২১

রংপুর সড়ক ও জনপথ (সওজ) বিভাগের নির্মাণাধীন একটি ভবনের দোতলার ছাদের একাংশ সাটারিংসহ ধসে পড়েছে। এ ঘটনায় পাঁচজন শ্রমিক আহত হয়েছেন।

বুধবার (২৮ জুলাই) বিকেল পৌনে ৫টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

অনেকের দাবি, ভবন নির্মাণ কাজে ব্যবহৃত বাঁশের সাটারিং নড়বড়ে থাকায় ছাদ ধসের এ ঘটনা ঘটেছে। তবে ফায়ার সার্ভিস বলছে, নিম্নমানের উপকরণ ও দুর্বল সাটারিংয়ের কারণেই ছাদ ঢালাইয়ের একাংশ ধসে পড়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী আরিফুজ্জামান আরিফ নামে এক যুবক জানান, দুর্ঘটনার সময় তিনি সড়ক ভবন মসজিদের সামনে অবস্থান করছিলেন। তখন ছাদের ওপরে ঢালাইয়ের কাজ করছিলেন শ্রমিকেরা। আকস্মিকভাবে সাটারিং ভেঙে ছাদের একাংশ ধসে পড়ে। এতে কয়েকজন নিচে পড়ে যায়। পরে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে তাদের উদ্ধার করেন।

স্থানীয় ওষুধ ব্যবসায়ী হাফিজুর রহমান বলেন, দুর্ঘটনায় তিন থেকে চারজনের শরীরে জখম হয়েছে। তাদের হাত, পা ও মুখে আঘাত লেগেছে। তিনি বলেন, বাঁশের সাটারিং ব্যবহার করা উচিত হয়নি। স্টিলের সাটারিং হলে এ দুর্ঘটনা হতো না।

রংপুর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সহকারী পরিচালক শামসুজ্জোহা জানান, দুর্বল সাটারিংয়ের কারণে সদ্য ঢালাই করা ছাদের একটি অংশ ধসে পড়ে। ভবনটি সড়ক বিভাগের জোনাল অফিস হিসেবে নির্মাণ করা হচ্ছিল।

রংপুর সড়ক ও জনপথ বিভাগের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী একিউএম ইকরাম উল্লাহ বলেন, বৃষ্টির কারণে সাটারিং সরে গিয়ে একাংশ ধসে পড়েছে। পরে তা ঠিক করা হয়েছে। এতে দু-তিনজন শ্রমিক আহত হয়েছেন। তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।